জার্মানিকে বিদায় জানালেন ওজিল

জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (ডিএফবি) বিতর্কিত আচরণের প্রতিবাদে জাতীয় দলকে বিদায় জানিয়েছেন দেশটির জনপ্রিয় ফুটবলার মেসুত ওজিল। রোববার এক বিবৃতিতে ২৯ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত রাশিয়া বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় জার্মানি। ওজিল জানান, সাম্প্রদায়িকতার কারণে রাশিয়ার আসরে দলের ব্যর্থতার জন্য তাকে দায়ী করা হচ্ছে। এ বিতর্কের কারণেই জার্মানির হয়ে আর না খেলার ঘোষণা দেন আর্সেনাল তারকা মেসুত ওজিল।

গত মে মাসে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে দেখা করার কারণে ওজিলকে জার্মানির রাজনীতিবিদরা সমালোচনা করেছিলেন।

জাতীয় দলের হয়ে খেলা ৯২ ম্যাচে ২৩ গোল করেন ওজিল। ২০১৪ সালে জার্মানির ব্রাজিল বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন তুর্কি বংশোদ্ভূত এ মিডফিল্ডার।

আমার দুটি হৃদয়, একটি তুরস্কের অন্যটি জার্মানির

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে মুখ খুলে শনিবার ওজিল টুইটার অ্যাকাউন্টে বলেন, আমি তুরস্ক বংশোদ্ভূত, তাই তুরস্কের প্রতি আমার ভালোবাসা রয়েছে। আমার পিতা আমাকে শিখিয়েছেন, আমরা যেখান থেকে এসেছি, যেখানে আমাদের পরিবার বেড়ে উঠেছে এবং আমাদের স্মৃতি রয়েছে- আমরা যেন তাকে ভুলে না যাই।

ওজিল বর্তমানে জার্মানির নাগরিক। এ বিষয়টিকে তিনি ছোট করতে চান না। তিনি লিখেছেন, আমার দুটি হৃদয়, এর একটি হচ্ছে তুরস্ক, অন্যটি জার্মানি।

ওজিল বলেন, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেল ২০১০ সালে এরদোগানের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। ওই সময় বার্লিনে তুরস্ক ও জার্মানির মধ্যে অনুষ্ঠিত একটি ফুটবল ম্যাচ এরদোগান ও মেরকেল একত্রে উপভোগ করেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *