তুর্কি অর্থায়নে হাসপাতালে কিরগিজিস্তানের লক্ষাধিক মানুষের চিকিৎসা

মধ্য এশিয়ার মুসলিমপ্রধান দেশ কিরগিজিস্তানে তুর্কি অর্থায়নে নির্মিত হাসপাতালে লক্ষাধিক মানুষ চিকিৎসা পেয়েছেন।

১৯০০ শতকের শেষের দিকে কিরগিজিস্তান রুশ সাম্রাজ্যের অন্তর্গত হয়। ১৯২৪ সালে এটি সোভিয়েত ইউনিয়নের একটি স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের মর্যাদা পায়। ১৯৩৬ সালে এটিকে একটি সোভিয়েত প্রজাতন্ত্রের মর্যাদা দেয়া হয়। এটি তখন কিরগিজিয়া নামেও পরিচিত ছিল।

১৯৯১ সালে দেশটি স্বাধীনতা লাভ করে। দেশটিতে গত ২৬ বছরে ৭৬০টির বেশি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে তুরস্ক। টার্কিশ কোঅপারেশন ও কোঅর্ডিনেশন সংস্থার (টিআইকেএ) কর্মসূচি সমন্বয়ক আলি মুসলি তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলুকে বলেন, কিরগিজিস্তানে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সাংস্কৃতির ক্ষেত্রে ৭৬১টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। কিরগিজিস্তান ওই সংস্থাটির সাহায্য গ্রহণের দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে বলে জানান তিনি।

আলি মুসলি বলেন, দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় অশ শহরে তুরস্কের অর্থায়নে নির্মিত হাসপাতালে এক বছরে সোয়া লাখ লোককে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নের জন্য তুরস্কের সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে। দেশটিতে আরও একটি (কিরগিজ-টার্কিশ ফ্রেন্ডশিপ বিশকেক হাসপাতাল) নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।

আলি মুসলি বলেন, ২০১৭ সালে অশ অঞ্চলের আয়ু গ্রামে ভূমিধসে ২৪ জন নিহত হওয়ার পর টিআইএকে সেখানে একটি আবাসিক প্রকল্প শেষ করেছে। স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের কাছে এসব বাড়ি হস্তান্তর করা হয়েছে।

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

কিরগিজিস্তানের বিভিন্ন পুনর্নির্মাণ প্রকল্পেও সহায়তা করেছে তুর্কি সাহায্য সংস্থা। আলি মুসলি বলেন, একটি জাদুঘরের বাইরের দেয়ালের মার্বেল পরিবর্তনসহ বিভিন্ন সংস্কার কাজ করে দিয়েছি আমরা।

সোভিয়েত আমলে নির্মিত জাদুঘরটি দ্রুতই নতুন করে উদ্বোধন করা হবে বলে জানান তিনি। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান শনিবার থেকে তিন দিনের কিরগিজিস্তান সফরে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *