গুরুদাসপুরে ডিসি শাহিনা খাতুনের বদলী জনিত আবেগঘন বিদায় সংবর্ধনা

বার্তা ডেস্ক..সততা,একাগ্রতা,কর্মনিষ্ঠা,দক্ষতাগুনে যিনি নাটোরে জনবান্ধব প্রশাসন প্রতিষ্ঠা,রাজসিক নাটোরের প্রবক্তা,চলনবিলের উন্নয়নে যার বিশেষ ভুমিকা,দক্ষহাতে গত বছরের বন্যা নিয়ন্ত্রন ও ফসল রক্ষায় অবদান,ই-ফাইলিং প্রবর্তন,উত্তরা গন ভবন আধুনিকায়ন,নারোদ নদ রক্ষায় হস্তক্ষেপ,চলনবিলের বিলশাকে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষনা,শতভাগ স্কাউটিং জেলা গড়ার কারিগর,নাটোর নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার স্বপ্নদ্রষ্টা,একাধারে কবি,সাহিত্যিক,সংগীতপ্রেম সহজ সরল একজন মানুষের নাম শাহিনা খাতুন। যিনি এসেছিলেন নাটোরের আধুনিকায়ন আর নাটোরবাসীর স্বপ্নদ্রষ্ট্রা হিসাবে। কর্মক্ষেত্রে তিনি তা প্রমানও করে গেছেন। কথাগুলো বলছিলেন নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুনকে নিয়ে তার বদলী জনিত বিদায় অনুষ্ঠানের সকল বক্তা। সম্প্রতি জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয় তাকে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের উপ-সচিব করে প্রজ্ঞাপন জারি করে। এ কারনে গত ২৬ সেপ্টেম্বর গুরুদাসপুর উপজেলা প্রশাসন ডিসি শাহিনা খাতুনের বদলী জনিত সংবর্ধানার আয়োজন করে। গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনির হোসেনের সভাপতিত্বে বেলা ১২ ঘটিকায় উপজেলা হলরুমে আয়োজিত ওই সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আব্দুল কুদ্দুস। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন-মশিন্দা ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান,মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নিলুফার ইয়াসমিন,কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল করিম,উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা আক্তার মিতা,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন জেলা আ.লীগের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক আনোয়ার হোসেন,৬টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ডের সদস্যগন,সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী ও সংবাদকর্মি । উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ হাফিজুর রহমানের উপস্থাপনায় সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনির হোসেন বলেন,ডিসি স্যার একজন জনপ্রশাসন বান্ধব দক্ষ প্রশাসক। তার কল্যানে নাটোরের সর্বত্র উন্নয়ন কর্মকান্ড ত্বরান্নিত হয়েছে। এমন ডিসির অধিনে কাজ করতে পেরে আমি ধণ্য। প্রধান অতিথির বক্তেব্যে আব্দুল কুদ্দুস বলেন,নাটোর ও নাটোরবাসীর উন্নয়নের স্বপ্নদ্রষ্টা কর্মবীর শাহিনা খাতুনের আরও কিছুদিন অবস্থান প্রয়োজন ছিলো। দেশ ও দেশের মানুষের কল্যানে বিশেষ করে নাটোরের উন্নয়নে তার অবদানের জন্য নাটোরবাসী তাকে আজীবন মনে রাখবে। ডিসি শাহিনা খাতুন তার বিদায়ী সংবর্ধনা আয়োজনের জন্য উপজেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে সবাইকে আলোকিত মানুষ হয়ে দেশের কল্যানে কাজ করার আহবান জানান। অনুষ্ঠানে তিনি দেশের যে প্রান্তেই থাকুন না কেন নাটোরকে নিয়ে কাজ করার অঙ্গিকার করেন। পরে তিনি নাটোর জেলার শ্রেষ্ঠ এসএমসি সভাপতি নির্বাচিত হওয়া আনোয়ার হোসেনের প্রতিষ্ঠান আনন্দনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। শিক্ষার্থীদের সাথে আনন্দঘন কিছু সময় কাটান। শেষে চলনবিলের পর্যটনকেন্দ্র বিলশা পয়েন্টে কিছু সময় কাটান। সাপ্তাহিক গুরুদাসপুর বার্তা পরিবার তার বর্নাঢ্য কর্মময় জীবন,আগামীর পথচলা,দীর্ঘায়ু কামনা করছে।