জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৪ ছাত্রলীগ কর্মী বহিষ্কার

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ভেতরে ছিনতাইয়ে বাধা দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে লাঞ্ছনা ও কর্তব্যরত এক সংবাদকর্মীকে মারধরের ঘটনায় জড়িত ৪ শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নির্বাহী ক্ষমতাবলে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি এ সম্পর্কিত একটি প্রাথমিক তদন্ত রিপোর্ট জমা দিয়েছে। এই রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে উপাচার্য তাদের বিরুদ্ধে বহিষ্কারের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে রেজিস্ট্রার সূত্র জানিয়েছে।

বহিষ্কৃতরা হলেন- বাংলা বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের শুভাশীষ ঘোষ, লোক প্রশাসন বিভাগের ৪৭তম ব্যাচের ইয়া রাফিউ শিকদার, মো. মোস্তফিজুর রহমান ও মো. সোহেল রানা। এরা সবাই শহীদ রফিক জব্বার হলের আবাসিক ছাত্র।

এ বিষয়ে ডেপুটি রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) মো. আবু হাসান বলেন, বহিষ্কৃতরা কোনো ধরনের ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না।

এ ছাড়া বহিষ্কৃতরা আবাসিক হলেও অবস্থান করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন প্রক্টর শিকদার মো. জুলকারনাইন।

এর আগে ২৪ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সুইমিংপুলে দুই বহিরাগতের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালিয়েছিলেন অভিযুক্তরা। তাতে বাধা দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্তব্যরত এক সাংবাদিক ও তার সঙ্গে থাকা বান্ধবীকে মারধর করেন তারা।

একই দিন এ ঘটনার অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে ওই দুই বহিরাগত, কর্তব্যরত সাংবাদিক ও লাঞ্ছনার শিকার ছাত্রী পৃথকভাবে প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন।

সূত্র জানায়, বহিষ্কৃতরা সবাই ছাত্রলীগের কর্মী। কিন্তু, শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক অভিযুক্তদের রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।