সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের সুপারিশের প্রতিবাদ

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির (৯ম থেকে ১৩তম গ্রেড) সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের সুপারিশের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রধান ফটকের সামনে তারা এ মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কোটা কারও দান নয়, এটি বঙ্গবন্ধু কর্তৃক মুক্তিযোদ্ধাদের উপহার। সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলে সুপারিশের মধ্য দিয়ে শুধু মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করা হয়নি, বঙ্গবন্ধু ও এ দেশে মুক্তিযুদ্ধকেও অস্বীকার করা হয়েছে।

বক্তারা আরও বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা এ দেশের প্রথম শ্রেণির নাগরিক। কিন্তু তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির চাকরিতে কোটা রেখে দেয়ার সুপারিশ মুক্তিযোদ্ধাদের মর্যাদাকে ক্ষুণ্ন করেছে। সরকারি আমলাদের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির কোটা বাতিলের সুপারিশকে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি।

মানববন্ধনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারণ সম্পাদক ধীরাজ চন্দ্র রায়ের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন রাজশাহী মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আব্দুল মান্নান, প্রচার সম্পাদক আবুল বাশার, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সমন্বয় পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখার আহ্বায়ক সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের রাবি শাখা সভাপতি তারিকুল হাসান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি সরকার গঠিত কমিটি ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডের (প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণি) সরকারি চাকরিতে কোনো কোটা না রাখার সুপারিশ করে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর কমিটির প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দেয়া হয়। প্রতিবেদনে কমিটি ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডের সব পদে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের সুপারিশ করে।