কাল্পনিক অভিযোগ প্রত্যাহার না হলে ১০ হাজার কোটি টাকার মানহানির মামলা

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এসকে সিনহা) বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপিকে জড়িয়ে যে মিথ্যা ও মানহানিকর অভিযোগ আনা হয়েছে, তা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রত্যাহার করে নেয়ার জন্য ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার প্রতি উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

তা না হলে ১০ হাজার কোটি টাকার মানহানির মামলা করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

বুধবার সালমা ইসলাম এমপির পক্ষে আইনি নোটিশটি পাঠানো হয়।

নোটিশে নাজমুল হুদাকে উদ্দেশ্য করে সালমা ইসলামের আইনজীবী মো. জিয়াউল হক বলেন, আপনি একজন সম্মানিত ব্যক্তি হয়ে একজন সম্মানিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনেছেন। আপনার বিরুদ্ধে সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহার দেয়া রায় ও তার বিরুদ্ধে ঘুষ নেয়ার যে অভিযোগ এনেছেন তা অস্পষ্ট ও স্ববিরোধিতাপূর্ণ। ওই রায় ও ঘুষ গ্রহণ বিষয়ে তাকে (সালমা ইসলাম) জড়ানো দুর্ভাগ্যজনক।

আইনজীবী মো. জিয়াউল হক বলেন, আপনি সংসদ সদস্য ও মন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু আপনারও জানার কথা আমার মক্কেলও একজন সংসদ সদস্য। তিনি বৃহৎ শিল্প গ্রুপের স্বত্বাধিকারী। অনেক দাতব্য ও সমাজ সেবামূলক কাজ তিনি করেছেন। এটা আপনি ভালো করেই জানেন। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ভেবে আপনি সালমা ইসলামের বিরুদ্ধে যা করেছেন তা একেবারেই অনৈতিক।

আইনজীবী বলেন, আপনি (নাজমুল হুদা) অভিযোগ এনেছেন- আপনার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা পুনরুজ্জীবিত করার পেছনে সালমা ইসলাম রয়েছেন। এবং এসকে সিনহাকে দিয়ে তিনি (সালমা ইসলাম) এটা করিয়েছেন। কিন্তু আপনি জানেন না, এসকে সিনহা অনেক মামলার রায়ে আমার মক্কেল সালমা ইসলাম ও তার কোম্পানির (যমুনা গ্রুপ) ক্ষতি করেছেন।

আশা করি, আপনার শুভবুদ্ধির উদয় হবে এবং আমার মক্কেলের বিরুদ্ধে আনীত শিশুসুলভ অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেবেন।

(বিস্তারিত আসছে…)