বাম দলের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ঐক্য চায়নি: কাদের

জাতীয় ঐক্যের প্রশ্নে বাম দলগুলোকে পাশে পাওয়ার বিষয়ে বামপন্থী নেতারা ‘ভুল’ বুঝেছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী গণসংযোগে সাংবাদিকদের কাছে ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর রমনায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের ৫১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘আজকে একটি বিষয় ভালো লাগছে যে বামপন্থীরা এক সুরে কথা বলছেন। সেটি হচ্ছে সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে তাঁরা নেই। এই উচ্চারণ যাঁরা করেছেন, আসুন না আমরা মিনিমাম পয়েন্টে ম্যাক্সিমাম ইউনিটি গড়ে ফেলি, অসুবিধাটা কোথায়?’

তবে আজকের সভায় ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নির্বাচনের জন্য বাম দলের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ঐক্য চায়নি। আমি তাঁদের আমাদের সঙ্গে নির্বাচনী ঐক্যের জন্য আহ্বান জানাইনি। আমি বলেছি এই মুহূর্তে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে যাঁরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বঙ্গবন্ধুকে নেতা মানেন, তাঁদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত, এই কথা আমি বলেছি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জাতীয় ঐক্য আমরাও চাই। কেমন জাতীয় ঐক্য? সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য। জাতীয় ঐক্য আমরাও চাই, স্বাধীনতার শত্রুদের বিরুদ্ধে। জাতীয় ঐক্য আমরাও চাই, নষ্ট রাজনীতির বিরুদ্ধে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বামপন্থীরা গতকাল আমার একটি বক্তব্যে ভুল বুঝেছে। আমি তাঁদের শ্রদ্ধা করি। যাঁরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বঙ্গবন্ধুকে নেতা মানেন, তাঁদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত, এই কথা আমি বলেছি।’

ড. কামাল হোসেন-বি চৌধুরীর ঐক্যের দিকে ইঙ্গিত করে ওবায়দুল কাদের বলেন, মাঝে মাঝে যেসব ঐক্যের কথা বলছে, তা শুরুতেই ভাঙন শুরু হয়েছে। ঐক্যের মধ্যে ভাঙনের সুর শুরু হয়ে গেছে।

একাদশ জাতীয় নির্বাচন বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী ডিসেম্বরে নির্বাচনের জন্য সবাই প্রস্তুত, বিএনপিও প্রস্তুত। বিএনপি এবার ঝুঁকি নিতে চায় না। তিনি বলেন, হেরে যাওয়ার ভয় থাকলে বিএনপি নির্বাচনে আসবে না। হেরে যাওয়ার ভয় থেকে প্রতিদিন বিএনপি নেতারা আবোল-তাবোল বকছে।

সরকার আবারও ভোটারবিহীন নির্বাচনের দিকে যাচ্ছে, বিএনপির রুহুল কবির রিজভীর এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ওবায়দুল কাদের বলেন, এই দেশে আর মাগুরা মার্কা নির্বাচন হবে না। এই দেশে আর ১৫ ফেব্রুয়ারি মার্কা ভোটারবিহীন নির্বাচন হবে না। তিনি আরও বলেন, এবারের নির্বাচন হবে ২০০৮ সালের মতো উৎসবমুখর পরিবেশে। বিএনপি না এলে নির্বাচন কি থেমে থাকবে? বিএনপি না এলেও এবার দেশে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচাল করার জন্য একটি মহল উঠেপড়ে লেগেছে। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ঘরে ঘরে, পাড়া-মহল্লায় সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। নির্বাচন বানচালের জন্য যেকোনো নাশকতা করার চেষ্টা করলে দাঁতভাঙা জবাব দিতে হবে।

সাংসদ ফজলে নূর তাপসের সভাপতিত্বে গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন প্রমুখ।